মানুষ যেন সুবিচার পায়: আনিসুজ্জামান

বুধবার রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে ‘নাগরিক সম্মেলন ২০১৭: বাংলাদেশে এসডিজি বাস্তবায়ন’ শীর্ষক সম্মেলনে প্রারম্ভিক অধিবেশনে একথা বলেন তিনি।

অধ্যাপক আনিসুজ্জামান বলেন, “মানুষ মানুষের মর্যাদা যেন পায় তা নিশ্চিত করতে হবে; মানুষ যেন সুবিচার পায়, সুশাসন পায় আজকের এই প্ল্যাটফর্ম থেকে সেই দাবি জানাচ্ছি।”

তিনি বলেন, মানুষের প্রতি মানুষের নিষ্ঠুরতা বেড়েছে। ঘরে ঘরে নারীরা নির্যাতিত হচ্ছে। রোহিঙ্গাদের ওপর অমানবিক নির্যাতন চলছে। এগুলো কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।

“নিজের দেশের মধ্যে সুশাসন যেন প্রতিষ্ঠিত হয়, মানুষ যাতে তার অধিকার ভোগ করতে পারে, সেটা অবশ্যই নজরে রাখতে হবে। আমরা আশা করি, সরকার ও ব্যক্তি পরস্পরের দিক থেকে সামনের দিকে এগিয়ে যাবে।”

আনিসুজ্জামান বলেন, মানুষের যাত্রা পথে যে সাফল্য তা রূপকথার গল্পকেও হার মানায়। ৫০ বছর আগে মহাকাশ জয় করা হয়েছে। এখন এক গ্রহ থেকে আরেক গ্রহে যাওয়ার চেষ্টা চলছে।

“এই ২০১৭ সালে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে দেশ বিস্ময়কর অগ্রগতি সাধন করেছে। এটি মানুষের অসাধারণ শক্তির পরিচয় বহন করে। কিন্তু এর পাশাপাশি মানুষের ব্যর্থতাও কিছু কম নয়।”

তিনি বলেন, পৃথিবীর তিন ভাগ পানি আর এক ভাগ স্থল। কিন্তু সুপেয় পানি পায় নাএমন মানুষের সংখ্যা নেহায়েত কম নয়। চিকিৎসা বিজ্ঞানে বিশ্ব অনেক এগিয়েছে, কিন্তু ন্যূনতম চাকিৎসা থেকে বঞ্চিত বহু মানুষ।

সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) বিশেষ ফেলো দেবপ্রিয় ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন সিপিডি চেয়ারম্যান অধ্যাপক রেহমান সোবহান, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও গণস্বাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী, মানবাধিকারকর্মী ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা সুলতানা কামাল প্রমুখ।

Pin It